বাংলাদেশ রেশম উন্নয়ন বোর্ড গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৯ নভেম্বর ২০১৮

উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ বিভাগ

উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ বিভাগঃ

বোর্ডের সদস্য (উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ) এ বিভাগের প্রধান। তাঁর নিয়ন্ত্রেণে এ বিভাগটি পরিচালিত হয়। দুটো রেশম কারখানা যথা রাজশাহী ও ঠাকুরগাঁও রেশম কারখানা এবং দেশের বিভিন্ন স্থানে ১২টি মিনিফিলেচার কেন্দ্র এ বিভাগের অন্তর্ভূক্ত।  বিভাগটির কার্যবলী নিম্নরুপঃ-

১। দেশে উৎপাদিত সরকারী ও বেসরকারী পর্যায়ে রেশম গুটি ও রেশম সামগ্রীর সুষ্ঠু বাজারজাতকরণের ব্যবস্থা গ্রহণ;
২। মিনিফলেচারের মাধ্যমে রেশম গুটি ক্রয় ও গুটি হতে গুণগত মানসম্পন্ন সুতা উত্পাদন ও উৎপাদিত সুতা বাজারজাতকরণ
৩। রিলিং প্রশিক্ষণের মাধ্যমে স্থানীয় মহিলা রিলারদের দক্ষতা বৃদ্ধি ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করা;
৪। মিনিফলেচারে নিয়োজিত রিলিং কাজে সংশি­ষ্টদের কারিগরী পরামর্শ প্রদান;
৫। রেশম তথা রেশম পণ্য উত্পাদনে সম্পৃক্ত বেসরকারী পর্যায়ে শিল্পোদ্যোক্তাগণের উন্নয়নের মাধ্যমে রেশম শিল্পের প্রসার ঘটানো;
৬। কাঁচা রেশম, স্পান সিল্ক ও রেশম পণ্য উৎপাদনের জন্য মিল স্থাপণের ব্যবস্থা গ্রহণ;
৭। মিনিফলেচারে সুতা কাটাই কার্যক্রম মডেল হিসেবে স্থানীয় বেসরকারী উদ্যোক্তাদের প্রদর্শন এবং এখান থেকে তাদের কারিগরী পরামর্শ ও সহায়তা প্রদান;
৮। সম্প্রসারণ এলাকায় চাষীদের উৎপাদিত রেশম গুটি বাজারজাতকরণে সহায়তা প্রদান;
৯। দেশে-বিদেশে রেশম ও রেশম সামগ্রী  জনপ্রিয় ও বাজারজাতকরণের জন্য প্রচারের ব্যবস্থা;
১০। রেশম সামগ্রীর মানোন্নয়ন এবং রেশম শিল্পের দক্ষ জনবল সৃষ্টির লক্ষ্যে বেসরকারী পর্যায়ের সিল্ক স্পিনার, উইভার ও প্রিন্টারদেরকে প্রশিক্ষণ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণ;
১১। বেসরকারী খাতে নতুন রেশম কারখানা স্হাপন ও প্রয়োজনীয় কারিগরী দিক-নির্দেশনা প্রদান;
১২। বস্ত্র সেক্টরের রেশম সাব-সেক্টরের রেশম নীতি, রেশম সুতা আমদানী ও রপ্তানী নীতি প্রণয়ন, সরকারের নিকট প্রয়োজনীয় সুপারিশ প্রেরণ৷

 

 


Share with :

Facebook Facebook